Saturday , July 20 2019
Home / অর্থনীতি / তানোরে সরকারী ক্রয়কেন্দ্রে ধান বিক্রির সুবিধায় কৃষক খুশি

তানোরে সরকারী ক্রয়কেন্দ্রে ধান বিক্রির সুবিধায় কৃষক খুশি

আলিফ হোসেন, তানোর
রাচশাহী তানোরে চলতি মৌসুমে প্রথম ধাপে সরকারী খাদ্যগুদামে কেবলমাত্র কৃষক ও প্রকৃত বোরো চাষীদের কাছে থেকে বোরো ধান (কেনা) সংগ্রহ করা হয়েছে। ফলে সরাসরি সরকারী ক্রয়কেন্দ্রে ধান বিক্রির সুবিধায় ফসলের নায্যমূল্য পেয়ে কৃষকরা বেশ খুশি। তবে উৎপাদনের তুলনায় চাহিদা অপ্রতুল্য হওয়ায় কারো কারো মধ্যে কিছুটা হতাশও দেখা গেছে। জানা গেছে, স্থানীয় সাংসদ, রাজশাহী জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও সাবেক শ্লি প্রতিমন্ত্রী আলহাজ্ব ওমর ফারুক চৌধূরীর কঠোর নির্দেশনা এবং স্থানীয় সাংসদের প্রতিনিধি ও উপজেলা চেয়ারম্যান লুৎফর হায়দার রশিদ ময়নার দেখভালের কারণে এবার মধ্যস্বত্ত্বভোগী ফড়িয়া বা কোনো সিন্ডিকেট চক্র খাদ্যগুদামে ধান সরবরাহ করতে পারেনি। কৃষি বিভাগ থেকে যাচাই-বাছাই করে প্রকৃত কৃষককে কুষি কার্ড দেয়া হয়েছে, সংশ্লিষ্ট কৃষকের কৃষি কার্ডের মাধ্যমে ধান ক্রয় ও কৃষকের ব্যাংক হিসাব নম্বরে টাকা জমা হওয়ায় এবার সিন্ডিকেট করার কোনো সুযোগ নাই।

আগে আসলে আগে পাবেন নীতিমালা অনুযায়ী কৃষকরা সরাসরি সরকারী ক্রয়কেন্দ্রে ধান বিক্রি করেছেন। তানোর পৌরসভার তালন্দ গ্রামের বাসিন্দা মৃত সামমোহাম্মদের পুত্র নুরুল ইসলাম (৪৫) ও মৃত আমির আলীর পুত্র মোকবুল হোসেন (৩৮) বলেন, এমপি মহোদয়ের নেয়া পদক্ষেপ ও উপজেলা চেয়ারম্যানের দেখভালের কল্যানে এবার তারা কোনো ঝুট-ঝামেলা ও দালালদের দৌরাতœ্য ছাড়াই দুই মেট্রিক টন করে ধান খাদ্যগুদামে সরবরাহ করেছেন, তারা আরো বলেন, এবার কেবলমাত্র প্রকৃত বোরো চাষীদের কাছে থেকে নায্যমূল্য ধান কেনা হচ্ছে। প্রসঙ্গত, চলতি বছরের ২০ মে সোমবার সকালে তানোর সরকারী খাদ্যগুদামে প্রথম ধাপে সংগ্রহ অভিযান উদ্বোধন করা হয়েছে এ সময় উপস্থিত ছিলেন স্থানীয় সাংসদের প্রতিনিধি, উপজেলা যুবলীগের সভাপতি ও উপজেলা চেয়ারম্যান লুৎফর হায়দার রশিদ ময়না। অন্যান্যদের মধ্যে আরো উপস্থিত ছিলেন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) নিলুফা ইয়াসমিন, উপজেলা সরকারী খাদ্যগুদামের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসিএলএসডি) তারেক উজ্জামান, তানোর পৌর আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক ওয়াজির হাসান প্রতাপ সরকার, মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান সোনিয়া সরদার ও লেবার সর্দার এমরান হোসেন ভুট্টুসহ উপজেলার বিভিন্ন অঞ্চলের চালকল মালিক ও এলাকার গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ।

সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা গেছে, চলতি মৌসুমে প্রথম ধাপে উপজেলা সরকারী খাদ্য গুদামে প্রতি কেজি ধান ২৬ টাকা, আতপ ধান ৩৬ টাকা, গম ২৮ টাকা ও চাল ৩৬ টাকা দরে সংগ্রহ করা হবে ২০ মে থেকে ৩০ আগস্ট পর্যন্ত সংগ্রহ অভিযান চলবে। এর মধ্যে ধান ৩৩৯ মেট্রিক টন, চাল ১০৯৬ মেট্রিক টন ও গম ১৩৬ মেট্রিক টন তবে চাল সরবরাহের জন্য ২৬টি মিল চুক্তিবদ্ধ হয়েছে এবং ধান ও গম সরাসরি কৃষকের কাছে থেকে সংগ্রহ করা হয়েছে। এদিকে এমপির প্রতিনিধি ও উপজেলা চেয়ারম্যান লুৎফর হায়দার রশিদ ময়না কঠোরভাবে সকলকে শতর্ক করে দিয়ে বলেছেন সংগ্রহ অভিযানে কোনো ধরণের অনিয়ম-দূর্নীতি সহ্য করা যাবে না এছাড়াও প্রকৃত কৃষক ব্যতিত কোনো মধ্যস্বত্ত্বভোগী বা সিন্ডিকেট চক্র যেনো গম-ধান সরবরাহ করতে না পারে সেই দিকে কঠোর নজরদারী করা হবে। অন্যদিকে সরকারী খাদ্য শস্য সংগ্রহ অভিযান শুরু হওয়ায় কৃষকদের স্বস্তি বিরাজ করছে। #
তানোর প্রতিনিধি
তাং ১৪ জুলাই ২০১৯

About habiba sakib

Check Also

রায়পুরায় মেঘনা নদীতে ভাঙন বিলীন হচ্ছে ঘরবাড়ি ও ফসলি জমি

এম,লুৎফর রহমান,নরসিংদী প্রতিনিধি ঃ নরসিংদীর রায়পুরায় কয়েক দিনে মেঘনার ক্রমাগত ভাঙনে শুধুমাত্র চরমধুয়া ইউনিয়নের দুই …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *