Tuesday , September 17 2019

*** অর্থমন্ত্রীর ফেসবুক আইডি হ্যাক *** অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামালের ফেসবুক আইডি (Ahm Mustafa Kamal) হ্যাক করা হয়েছে। হ্যাকাররা অর্থমন্ত্রীর আইডি থেকে বিভিন্নজনকে আপত্তিকর এসএমএসও পাঠিয়েছে। গতকাল রাতে অর্থমন্ত্রীর দফতর থেকে পাঠানো এক বিজ্ঞপ্তিতে ওই আইডি থেকে যদি কোনো অনাকাক্সিক্ষত পোস্ট, রিকোয়েস্ট বা বার্তা কারও কাছে যায় বিষয়টি সম্পর্কে সতর্কতা অবলম্বনের অনুরোধ করা হয়েছে। সেই সঙ্গে এই অনাকাক্সিক্ষত ঘটনার জন্য দুঃখ প্রকাশ করা হয়েছে। বিষয়টি সমাধানের লক্ষ্যে ইতিমধ্যে ব্যবস্থাও গ্রহণ করা হয়েছে বলে জানানো হয়। *** হামলা না চালাতে পাকিস্তানকে অনুরোধ ভারতের! *** চলতি বছর সীমান্তে ২ হাজার ৫০ বারের বেশি যুদ্ধবিরতি লঙ্ঘন করে গোলাবর্ষণ করেছে পাকিস্তান। এতে ভারতের সেনাবাহিনীর সদস্য ও বেসামরিক অন্তত ২১ জনের প্রাণহানি ঘটেছে। ২০০৩ সালে স্বাক্ষরিত যুদ্ধবিরতি চুক্তি মেনে চলার জন্য পাকিস্তানের প্রতি ভারত বারবার অনুরোধ জানালেও তা উপেক্ষা করেছে ইসলামাবাদ। ***

*** বরিশালে ২৪ ঘণ্টায় ডেঙ্গু আক্রান্ত হয়ে শেবাচিম হাসপাতালে ২৯ রোগী **** কগত ২৪ ঘণ্টায় নতুন করে ডেঙ্গু আক্রান্ত হয়ে ব‌রিশাল শের-ই বাংলা মে‌ডি‌কেল ক‌লেজ হাসপাতা‌লে (শেবাচিম) ভর্তি হয়েছেন ২৯ জন রোগী। নতুন ২৯জন সহ রবিবার দুপুর পর্যন্ত হাসপাতালে ৯৮ জন রোগী চি‌কিৎসাধীন ছিলো। ৯৮ জ‌নের ম‌ধ্যে পুরুষ ৩৫ জন, নারী ৩৫ জন এবং ২৮জন শিশু। *** মোদিকে বিষধর সাপ উপহারের হুমকি, গ্রেফতার সেই পাকিস্তানি অভিনেত্রী *** কিছুদিন আগে ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদিকে বিষধর সাপ উপহার দেওয়ার হুমকি দিয়েছিলেন পাকিস্তানি অভিনেত্রী রবি পীরজাদা। অভিনেত্রীর ওই হুমকির ভিডিও প্রকাশ্যে আসতেই মূহুর্তে ভাইরাল হয়ে যায়। অন্যদিকে, ভারতের প্রধানমন্ত্রীকে সরাসরি হুমকি দেওয়ার বিষয় নিয়ে নেটদুনিয়ায় অনেক উত্তেজনাও ছড়িয়েছিল। এবার সেই অভিনেত্রীকে গ্রেফতার করা হলো পাকিস্তান থেকে। ***

Home / অন্যান্য / দেওয়ালবন্দি শিশুর জীবন!

দেওয়ালবন্দি শিশুর জীবন!

১০ বছরের রাহুল। রাজধানীতেই তার বেড়ে ওঠা। মাঠে খেলতে ভীষণ পছন্দ করে সে। কিন্তু রাহুলের বাবা-মা কোনোভাবেই ছেলেকে মাঠে খেলতে দিতে চান না। কারণ ছেলে বেশি চঞ্চল। রাহুলের মা রিমি বলেন, মাঠে খেলতে গেলেই সে কপাল ফাটিয়ে আসে, কখনো পায়ে ব্যথা পায়, নয়তো আঙুল থেঁতলে আসে। আর এসব শারীরিক অসুস্থতার কারণে দু-চার দিন স্কুল-কোচিংও বাদ পড়ে। এতে রাহুল ক্লাসে পিছিয়ে পড়ে। তাই রাহুলকে ট্যাব কিনে দেয়া হয়েছে। সে এখন ট্যাব ও কম্পিউটারে বাসায় বসেই বিভিন্ন ধরনের গেমস খেলে, মাঠে যাওয়া তার একেবারে বন্ধ।

এ চিত্র কেবল রাজধানীর নয়, সারাদেশে একই অবস্থা। তবে বিশেষজ্ঞরা বলছেন, শিশুরা খেলার ভেতর দিয়েই শিখবে। খেলাধুলার মধ্য দিয়েই শিশুর সৃজনশীলতার বিকাশ ঘটবে। মানুষের সঙ্গে শিশুরা মিশতে শিখবে; এতে তাদের সামাজিক দক্ষতা বাড়বে, কল্পনাশক্তির বিকাশ ঘটবে। অথচ শহরের স্কুল ও পাড়ায় খেলার মাঠ না থাকায় এবং নিরাপত্তার অভাবে শিশুদের মাঠে খেলাধুলা প্রায় বন্ধ হয়ে যাচ্ছে। ফলে শিশুরা চার দেওয়ালে বন্দি হয়ে পড়ছে এবং স্ক্রিনে আটকে গেছে তাদের দৃষ্টি। খেলাধুলা ও অন্যান্য কার্যক্রমের সঙ্গে যুক্ত না থাকায় অনেকে মুটিয়ে যাচ্ছে এবং নানা ধরনের অসুস্থতায় পড়ছে। বাধাগ্রস্ত হচ্ছে শিশুর শারীরিক ও মানসিক বিকাশ।

শিশু অধিকার নিয়ে কাজ করেন এমন ব্যক্তিরা জানান, ‘জাতিসংঘ শিশু অধিকার সনদ’-এর ধারা ৩১-এ বলা আছে, ‘খেলাধুলা শিশুর অধিকার।’ তবে ‘জাতীয় শিশুনীতি-২০১১’ অনুযায়ী, শিশুর খেলা ও বিনোদনের অধিকার নিশ্চিত করা সরকারের কর্তব্য। শিশুদের খেলাধুলার অধিকার নিশ্চিত করতে দায়িত্ব রয়েছে আমাদের প্রত্যেকেরই।

রাজধানীর একজন অভিভাবক এনামুল হক বলেন, ‘বাইরে বাচ্চাকে একা ছাড়তে নিরাপদ বোধ করি না। তাছাড়া আমরা যে সময় দেব, ব্যস্ততার কারণে তা-ও পারি না। তাই সন্তানকে নিরাপদে বাসায় রেখে বিনোদনের ব্যবস্থা হিসেবে ট্যাব ও কম্পিউটার দিয়েছি। কারণ এখন সময়টা আগের মতো নয় যে বাচ্চা একা বাইরে খেলে ফিরে আসবে। কিংবা বাসার পাশেই মাঠ নেই যে সেখানে খেলে ঘরে ফিরে আসবে। মাঠ আছে, সেটা বাসা থেকে দূরে। তাই সন্তানের বাইরে খেলাই বন্ধ রেখেছি।’

সেভ দ্য চিলড্রেন ২০১৮ সালে ‘শিশুদের খেলাধুলার অধিকার’ বিষয়ে যে গবেষণা রিপোর্ট প্রকাশ করেছে, তাতে দেখা গেছে :“ঢাকা শহরের শিশুরা বলছে, তারা খেলাধুলার পর্যাপ্ত সুযোগ পাচ্ছে না। ৪৭ শতাংশ শিশু মনে করে এর কারণ পড়াশোনার অতিরিক্ত চাপ। ‘ভ্যালু অব প্লে’ শীর্ষক ওই রিপোর্টের তথ্যমতে, ৯২ শতাংশ শিশু মনে করে খেলার ছলে তারা আরো ভালোভাবে শিখতে পারে। ৯৮ শতাংশ অভিভাবকও মানেন, খেলার মধ্য দিয়ে শিশুর পরিপূর্ণ বিকাশ ঘটে।

এ বিষয়ে জাতীয় মানসিক স্বাস্থ্য ইনস্টিটিউটের সহযোগী অধ্যাপক ডা. হেলাল উদ্দিন আহমেদ বলেন, শিশুদের বিনোদনের দরকার আছে। কিন্তু বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা মোবাইল ফোন আসক্তিকে একটি রোগ হিসেবে চিহ্নিত করেছে।

সেভ দ্য চিলড্রেনের ‘শিশু সুরক্ষা কার্যক্রম’-এর পরিচালক আবদুল্লাহ আল মামুন বলেন , যাদের ছোটো বাচ্চা আছে এমন একটা পরিবার যখন বাসা খোঁজে, তখন দেখে যে বাসার চারপাশে ভালো স্কুল আছে কি না। কিন্তু খুব কম অভিভাবক আছেন, যারা বাসা নেওয়ার সময় ভাবেন যে বাসার আশপাশে খেলার মাঠ আছে কি না।

About Nws Editor

Check Also

নান্দাইলে শিক্ষক মুসলেহ উদ্দিন বিএসসিকে বাচাঁতে স্ত্রী-সন্তানদের আকুতি প্রধানমন্ত্রীর হস্তক্ষেপ কামনা ॥

  নান্দাইল (ময়মনসিংহ) সংবাদদাতা: শিক্ষক মানুষ গড়ার কারিগর। শিক্ষাদানের মাধ্যমে গড়ে তুলে শিক্ষিত জাতি। এককথায় …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *