Tuesday , September 17 2019

*** অর্থমন্ত্রীর ফেসবুক আইডি হ্যাক *** অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামালের ফেসবুক আইডি (Ahm Mustafa Kamal) হ্যাক করা হয়েছে। হ্যাকাররা অর্থমন্ত্রীর আইডি থেকে বিভিন্নজনকে আপত্তিকর এসএমএসও পাঠিয়েছে। গতকাল রাতে অর্থমন্ত্রীর দফতর থেকে পাঠানো এক বিজ্ঞপ্তিতে ওই আইডি থেকে যদি কোনো অনাকাক্সিক্ষত পোস্ট, রিকোয়েস্ট বা বার্তা কারও কাছে যায় বিষয়টি সম্পর্কে সতর্কতা অবলম্বনের অনুরোধ করা হয়েছে। সেই সঙ্গে এই অনাকাক্সিক্ষত ঘটনার জন্য দুঃখ প্রকাশ করা হয়েছে। বিষয়টি সমাধানের লক্ষ্যে ইতিমধ্যে ব্যবস্থাও গ্রহণ করা হয়েছে বলে জানানো হয়। *** হামলা না চালাতে পাকিস্তানকে অনুরোধ ভারতের! *** চলতি বছর সীমান্তে ২ হাজার ৫০ বারের বেশি যুদ্ধবিরতি লঙ্ঘন করে গোলাবর্ষণ করেছে পাকিস্তান। এতে ভারতের সেনাবাহিনীর সদস্য ও বেসামরিক অন্তত ২১ জনের প্রাণহানি ঘটেছে। ২০০৩ সালে স্বাক্ষরিত যুদ্ধবিরতি চুক্তি মেনে চলার জন্য পাকিস্তানের প্রতি ভারত বারবার অনুরোধ জানালেও তা উপেক্ষা করেছে ইসলামাবাদ। ***

*** বরিশালে ২৪ ঘণ্টায় ডেঙ্গু আক্রান্ত হয়ে শেবাচিম হাসপাতালে ২৯ রোগী **** কগত ২৪ ঘণ্টায় নতুন করে ডেঙ্গু আক্রান্ত হয়ে ব‌রিশাল শের-ই বাংলা মে‌ডি‌কেল ক‌লেজ হাসপাতা‌লে (শেবাচিম) ভর্তি হয়েছেন ২৯ জন রোগী। নতুন ২৯জন সহ রবিবার দুপুর পর্যন্ত হাসপাতালে ৯৮ জন রোগী চি‌কিৎসাধীন ছিলো। ৯৮ জ‌নের ম‌ধ্যে পুরুষ ৩৫ জন, নারী ৩৫ জন এবং ২৮জন শিশু। *** মোদিকে বিষধর সাপ উপহারের হুমকি, গ্রেফতার সেই পাকিস্তানি অভিনেত্রী *** কিছুদিন আগে ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদিকে বিষধর সাপ উপহার দেওয়ার হুমকি দিয়েছিলেন পাকিস্তানি অভিনেত্রী রবি পীরজাদা। অভিনেত্রীর ওই হুমকির ভিডিও প্রকাশ্যে আসতেই মূহুর্তে ভাইরাল হয়ে যায়। অন্যদিকে, ভারতের প্রধানমন্ত্রীকে সরাসরি হুমকি দেওয়ার বিষয় নিয়ে নেটদুনিয়ায় অনেক উত্তেজনাও ছড়িয়েছিল। এবার সেই অভিনেত্রীকে গ্রেফতার করা হলো পাকিস্তান থেকে। ***

Home / আন্তর্জাতিক / ক্ষমতা থাকলে হিন্দুদের দেশ থেকে বের করে দেখান: ভারত সরকারকে চ্যালেঞ্জ

ক্ষমতা থাকলে হিন্দুদের দেশ থেকে বের করে দেখান: ভারত সরকারকে চ্যালেঞ্জ

এনআরসির তালিকা প্রকাশের পর আসামের বিভিন্ন জায়গায় প্রতীক হাজেলা এবং এনআরসির লোগো জ্বালিয়ে প্রতিবাদ জানিয়েছিল আসাম হিন্দু যুব ছাত্র পরিষদ। পাশাপাশি রাজ্যের প্রত্যেক জেলায় এনআরসি থেকে বাদ যাওয়া হিন্দু পরিবারগুলোর পাশে দাঁড়িয়েছে সংস্থাটি।

এবার সংস্থার সদস্যরা সরাসরি জানিয়ে দিয়েছেন, এনআরসিতে শেষ পর্যন্ত নাম না উঠলেও কোনও হিন্দুকে রাষ্ট্রহীন করা যাবে না। তারা সরাসরি রাজ্য এবং কেন্দ্রীয় সরকারকে এ ব্যাপারে চ্যালেঞ্জ জানিয়েছেন।

সোমবার আসামের মাজুলী জেলায় খ্রিস্টান মিশনারীদের ধর্মান্তর কার্যকলাপের বিরুদ্ধে অভিযান চালায় সংস্থাটি।

সংস্থাটির সভাপতি গণমাধ্যমকে বলেন, ‘প্রায় ১৬০০ কোটি টাকা খরচ করে একটি অসম্পূর্ণ এনআরসির তালিকা তৈরি করেছেন প্রতীক হাজেলা। মূলত হিন্দুদের বাদ দেওয়ার একটি বিরাট চক্রান্ত করেছেন তারা এবং এতে সরকারপক্ষের অনেকেই সহায়তা করেছেন।

তিনি আরও, “আমরা এতকিছু বুঝি না এবং বুঝতে চাইও না, ভারতবর্ষ হিন্দুদের রাষ্ট্র, এখানে কোনও হিন্দু বিদেশি হতে পারে না। আমরা এতদিন অপেক্ষা করেছি এবং বারবার তাদের কাছে বলেছি, এনআরসি প্রক্রিয়া শুদ্ধভাবে করা হোক। অথচ শেষমেষ একটি অসমাপ্ত তালিকা প্রকাশ করা হয়েছে এবং আমরা দেখতে পাচ্ছি ১৯ লাখ লোকের নাম দেওয়া হয়েছে যার অধিকাংশই হিন্দু।”

সভাপতি বলেন, “আমরা হিন্দুত্ববাদী সংগঠন এবং আমাদের শাখা আসামের প্রায় প্রত্যেক এলাকায় রয়েছে। রাজ্যের বিভিন্ন হিন্দু ভাবাপন্ন সংগঠন সাধারণ মানুষকে সুরক্ষা দিতে আমাদের সঙ্গে মিলেমিশে কাজ করছে। ৩১ আগস্ট তালিকা প্রকাশের পর এনআরসি থেকে যারা বাদ পড়েছেন তাদের সঙ্গে যখন আমরা দেখা করলাম তখন জানতে পারলাম, ১৯৫২, ১৯৫৪ বা ১৯৬০ সালের নথি থাকার পরও এনআরসির তালিকা থেকে বাদ দেওয়া হয়েছে হিন্দু পরিবারদের। অনেক ক্ষেত্রে মা-বাবার নাম রয়েছে অথচ সন্তানের নাম তালিকায় ওঠানো হয়নি। অথচ সম্প্রতি আমরা দেখেছি বরাক উপত্যকার হাইলাকান্দি জেলায় এক মুসলমান পরিবার ২০১৪ সালে বাংলাদেশ থেকে ভিসায় ভারতে এসে তাদের নাম এনআরসিতে অন্তর্ভুক্ত করেছে।”

তিনি আরও বলেন, ‘খবরে শোনা যাচ্ছে তার পরিবারের আরেক সদস্য বর্তমানে বাংলাদেশের নাগরিক অথচ ভারতবর্ষে তার ভোটার কার্ড ইত্যাদি রয়েছে। এভাবেই লক্ষ লক্ষ অবৈধ মুসলমান অনুপ্রবেশকারী এনআরসিতে নাম অন্তর্ভুক্ত করাতে সমর্থ হয়েছে আর প্রতীক হাজেলা হিন্দুদের নাম বাদ দিয়েছেন। আমরা প্রতীক হাজেলাকে সরাসরি চ্যালেঞ্জ জানিয়েছি, সাহস থাকলে ১৯ লাখের তালিকায় থাকা প্রত্যেক ব্যক্তির ধর্মীয় পরিচয় প্রকাশ্যে আনুন। আমি দাবি রেখে বলতে পারি প্রায় ১৪ থেকে ১৫ লাখ হিন্দু এই তালিকায় রয়েছেন। তবে শুধুমাত্র প্রতীক হাজেলাকে এর জন্য দায়ী করছি না আমরা, এই ব্যর্থতার সমান দায় রাজ্য এবং কেন্দ্রীয় সরকারেরও। ৩১ আগস্ট যে তালিকা প্রকাশ করা হয়েছে এর মাধ্যমে একজন অবৈধ অনুপ্রবেশকারীকেও ভারত থেকে বের করে দেওয়া সম্ভব হবেনা বলে মনে করি আমরা।”

About Nws Editor

Check Also

মালয়েশিয়ায় বাংলাদেশি হত্যায় তিন ইন্দোনেশিয়ান নাগরিক শনাক্ত

মালয়েশিয়ায় মো. শামীম (৩৩) নামে এক বাংলাদেশিকে কুপিয়ে হত্যার ঘটনায় সন্দেহভাজন তিনজন ইন্দোনেশিয়ান নাগরিককে প্রাথমিকভাবে …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *